মোবাইল নিবন্ধন ওয়েবসাইট।Btrc Online Mobile Registration

মোবাইল নিবন্ধন ওয়েবসাইট বা বিটিআরসি মোবাইল রেজিস্ট্রেশন সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন তাহলে সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন।

আমাদের অনেক সময় মোবাইল নিবন্ধন ওয়েবসাইট এর প্রয়োজন হয়। সেজন্য আমরা গুগল সার্চ করে থাকি মোবাইল নিবন্ধন ওয়েবসাইট এই কিওয়ার্ডটি লিখে।

আজকের এই আর্টিকেল আপনি জানতে পারবেন তা কোন ওয়েবসাইট? এবং আমি আপনাদেরকে বলব কীভাবে অনলাইনে মোবাইল নিবন্ধন করবেন।

পাশাপাশি কিভাবে চেক করবেন তা নিয়ে আলোচনা করব ইনশাল্লাহ।

আরো পড়ুনঃ টেলিটক নাম্বার দেখার উপায়।    

মোবাইল নিবন্ধন ওয়েবসাইট বা বিটিআরসি মোবাইল রেজিস্ট্রেশন।মোবাইল রেজিস্ট্রেশন চেক ২০২২

আপনাদের সুবিধার্থে প্রথমেই বলে দিই মোবাইল নিবন্ধন ওয়েবসাইট এই কী-ওয়ার্ডে পার্মালিঙ্ক করে দেওয়া আছে।

আমরা মাঝে মাঝে বিদেশ থেকে একটি মোবাইল কিনে আমাদের দেশে নিয়ে আসে অথবা আমরা নিজের দেশ থেকে একটি নতুন মোবাইল ক্রয় করি। তারপর কিন্তু আমাদের মোবাইল নিবন্ধন করার প্রয়োজন পড়ে।

আপনি কি জানেন যদি কোন নতুন মোবাইল বাজার থেকে কিনে আনেন অবশ্যই ফোনটি নিবন্ধন করতে হবে। আপনি নিবন্ধন ছাড়া মোবাইলটি চালাতে পারবেন না।

যদিও প্রথমে কয়েকদিন ভালই চলবে। কিন্তু কিছুদিন যাওয়ার পরে বুঝতে পারবেন আপনি কোথাও নেটওয়ার্ক পাচ্ছেন না।

এর প্রধান কারণ হলো আপনার মোবাইল নিবন্ধিত নয়। কেননা আমাদের দেশের জননেত্রী শেখ হাসিনা 2021 সালের পহেলা জুলাই ঘোষণা দিয়েছে যে প্রত্যেকের মোবাইল নিবন্ধন করতে হবে।

তারপর থেকেই এই কার্যক্রম এখনো পর্যন্ত চলতেছে। তাই আপনি যদি বাংলাদেশি মোবাইল ফোন চালাতে চান, তাহলে অবশ্যই ফোনটি নিবন্ধন করুন। 

মোবাইল রেজিস্ট্রেশন চেক করার নিয়ম জেনে নিন

আপনি যদি একটি মোবাইল ক্রয় করে থাকেন, তাহলে মোবাইল রেজিস্ট্রেশন চেক করা আপনার জন্য অত্যন্ত জরুরী।

অর্থাৎ আপনার মোবাইলটি অফিসিয়াল নাকি আনঅফিসিয়াল তা যাচাই করে দেখতে হবে। অর্থাৎ আমাদের দেশের সরকারের কাছে আপনার মোবাইলের তথ্য আছে কিনা তা অবশ্যই খতিয়ে দেখবেন।

র জন্য আপনার ফোনের মেসেজ বিভাগে যাবেন। এখন KYD টাইপ করবেন। তারপর একটি এসএমএস পাঠাবেন। এখন আবার একটি স্পেস দিবেন।

তারপর আপনার ফোনের আইএমইআই নাম্বারটি প্রদান করবেন। এটি মূলত 15 সংখ্যার একটি নাম্বার। এখন আপনারা আমাকে বলতে পারেন ভাই আইএমইআই নাম্বার কিভাবে বের করব?

এর জন্য আপনি ফোনের ডায়াল প্যাডে যাবেন। তারপর সেখানে এই ইউএসএসডি*#০৬# কোডটি ডায়াল করুন।

যাইহোক আইএমইআই নাম্বার প্রদান করার পরে ০১৬০০২ এই নাম্বারে পাঠিয়ে দেবেন। তখন আপনার ফোনে ফিরতি একটি বার্তা আসবে।

ঐ বার্তাতে বলে দেওয়া হবে আপনার ফোনটি অফিসিয়াল নাকি আন অফিসিয়াল। আর যদি আপনার ফোনটি রেজিস্ট্রেশন করা থাকে তাহলে তো মঙ্গল জনক।

আর যদি না করে থাকে তাহলে অবশ্যই আপনাদের করতে হবে। আর কিভাবে করবেন তা নিচে আলোচনা করা হলো।

বিদেশি মোবাইল রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম জেনে নিন

প্রথমে আপনি উপরে দেওয়া মোবাইল নিবন্ধন ওয়েবসাইট এর লিঙ্ক এ প্রবেশ করুন। আপনার যদি কোন অ্যাকাউন্ট তৈরি করা না থাকে, তাহলে অবশ্যই প্রথমে একাউন্ট তৈরি করবেন।

এখন আপনারা আমাকে বলতে পারেন ভাই একাউন্ট তৈরি করতে কি কোন টাকা লাগে? এর উত্তরে আমি বলব আপনার ফ্রিতে নিবন্ধন ওয়েবসাইটে অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারবেন।

অ্যাকাউন্ট তৈরি করার পর আপনি ভিতরে প্রবেশ করবেন। সেখানে স্পেশাল রেজিস্ট্রেশন নামে একটি বিভাগ পাবেন।

এই বিভাগে আপনার ফোনের আইএমইআই নাম্বারটি প্রদান করবেন। আর আপনার যদি আইএমইআই নাম্বারটি না থাকে তাহলে তা বের করুন।

আমি ইতিপূর্বে আলোচনা করেছি কিভাবে আইএমইআই নাম্বারট বের করবেন। আপনি সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়লে বুঝতে পারবেন।

যাইহোক এই 15 সংখ্যার নাম্বারটি দেওয়ার পর আপনার মোবাইলটি নিবন্ধন করার জন্য কিছু কাগজপত্র লাগতে পারে।

এগুলো হলো মোবাইল কেনার কাগজপত্রগুলো। পাশাপাশি পাসপোর্ট ভিসা ও ইমিগ্রেশন তথ্য।

যাই হোক প্রয়োজনীয় কাগজপত্র গুলো সঠিকভাবে সাবমিট হয়ে গেলে আপনার ফোনটি নিবন্ধিত হয়ে যাবে।

তবে একটি জিনিস মাথায় রাখবেন আপনার ফোনটি যদি লিগেল হয়ে থাকে, তাহলে তা নিবন্ধিত হবে।

আর যদি আপনার মোবাইলটি লিগেল না হয়, তাহলে বার্তা প্রেরণের মাধ্যমে আপনাকে বলে দেওয়া হবে।

মোবাইল নিবন্ধন করতে কি টাকা লাগে?

না ভাই মোবাইল নিবন্ধন করতে কোন টাকা লাগে না। আপনি যদি মোবাইল নিবন্ধন করতে চান, তাহলে নিবন্ধন ওয়েবসাইটে গিয়ে নিজের হাতের মোবাইল দিয়েই সম্পূর্ণ কাজ করতে পারবেন।

আপনি যদি একজন প্রবাসী হন,তাহলে বাহির থেকে দুইটি মোবাইল আনতে পারবেন কোন প্রকার টেক্স ছাড়াই। তবে একটি জিনিস মাথায় রাখবেন যদি দুটির বেশি অর্থাৎ তিনটি থেকে ছয়টি মোবাইল আনেন, তাহলে অবশ্যই বাংলাদেশ সরকারকে ট্যাক্স প্রদান করতে হবে।

আর মোবাইল নিবন্ধন করার নিয়মটা আগের মতোই যেটা আমি পূর্বে বলেছি। আশাকরি মোবাইল নিবন্ধন ওয়েবসাইট সম্পর্কে বিস্তারিত জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.